You are currently viewing মাস্টার ব্লাস্টার শচীনের মূর্তি উন্মোচন মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে, তার নিজের মাঠে লিটিল মাস্টার হয়ে থাকবেন চির অমর –

মাস্টার ব্লাস্টার শচীনের মূর্তি উন্মোচন মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে, তার নিজের মাঠে লিটিল মাস্টার হয়ে থাকবেন চির অমর –

Rate this post

লিটিল মাস্টার এর নিজের গ্রাউন্ড-এ শচীন টেন্ডুলকার হয়ে গেলেল অমর । আজ ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামের ভিতরে একটি জমকালো অনুষ্ঠানে তার মূর্তি উন্মোচন করা হল। ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামের ভিতরে শচীন টেন্ডুলকার স্ট্যান্ডের পাশেই এই ভারতীয় ক্রিকেট কিংবদন্তির নতুন মূর্তিটি উন্মোচন হল এবং এই অনুষ্ঠান দেখার জন্য বহু বিশিষ্ট ব্যক্তি উপস্থিত ছিলেন।

1 নভেম্বর ভারতীয় ক্রিকেট কিংবদন্তি শচীন টেন্ডুলকার মূর্তি মুম্বাই -এর ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে শচিনের নিজের হোম Ground এ উন্মোচিত হল। এবং এর মধ্য দিয়ে তিনি জীবিত অবস্থাতেই এই মাঠের ভেতর অমর হয়ে গেলেন।

এপ্রিল মাসে টেন্ডুলকারের 50 তম জন্মদিন উপলক্ষে বছরের শুরুতে মূর্তিটি উন্মোচনের পরিকল্পনা করা হয়েছিল। যাইহোক, কিন্তু কিছু কারন বসত মূর্তিটির উন্মোচনটি পিছিয়ে দেওয়া হয়েছিল।

মূর্তিটি, টেন্ডুলকারের বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ার এবং ভারতীয় ক্রিকেটে অবদানের প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করে। এই বিখ্যাত কাজ টি করেছেন প্রখ্যাত চিত্রশিল্পী-ভাস্কর প্রমোদ কাম্বলে , জিনি আহমেদনগরের এর বাসিন্দা। মূর্তি টি টেন্ডুলকারকে তার একটি আইকনিক ক্রিকেট স্ট্রোক কে অনুকরণ করা হয়েছে। এই মূর্তি কে স্টেডিয়ামের মধ্যে শচীন টেন্ডুলকার স্ট্যান্ডের পাশেই স্থাপন করা হয়েছে।

ভীষণ জমকালো অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে মূর্তিটির উন্মোচন হল , মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী একনাথ শিন্ডে, উপ-মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবিস, বিসিসিআই সেক্রেটারি জয় শাহ, কোষাধ্যক্ষ আশিস শেলার সহ মুম্বাই ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের (এমসিএ) আধিকারিক যেমন সভাপতি সহ বিভিন্ন বিশিষ্ট ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন। অমল কালে, সচিব আজিঙ্কা নায়েক এবং শীর্ষ পরিষদের অন্যান্য সদস্যরা সবাই উপস্থিত ছিলেন।

স্টেডিয়াম -এ সব সময় “শচীন, শচীন” আওয়াজ ই শোনা জাচ্ছিল। প্রচুর ভারতীয় ক্রিকেট প্রেমি আজ এখানে উপস্থিত ছিলেন। এবং ক্রিকেটপ্রেমিরা সারাক্ষণ শচীন, শচীন চিৎকার করেতে থাকে।

মূর্তিটি একটি সুউচ্চ কাঠামো, যা 22 ফুট উঁচুতে দাঁড়িয়ে আছে। এটি ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে শেন ওয়ার্নের বলে টেন্ডুলকারের বিখ্যাত লাফ্টেড শটকে চিত্রিত করেছে।

মূর্তিটির উন্মোচনটি ভারত ও শ্রীলঙ্কার মধ্যে আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ 2023 ম্যাচের আগের দিন হল। তবে এর সাথে ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে স্মরণীয় 2011 বিশ্বকাপ ফাইনাল এর মিল খুজে পাওয়া যাচ্ছে। কারন ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে টেন্ডুলকারের শেষ বিশ্বকাপ খেলাটি ছিল শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে 2011 সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপের ফাইনাল।

Whatsapp Group Join
Telegram channel Join

Leave a Reply