You are currently viewing রোহিতের এই কয়েকটি দুরন্ত সিধান্ত (মাস্টার-স্ট্রোক) , দঃ আফ্রিকাকে 243 রানে হারিয়ে দিল, যদিও বিরাট -জাদেজাদের অবিশ্বাস্য পারফরম্যান্স, ছিল মাস্টার-স্ট্রোক ছিল দুরন্ত –

রোহিতের এই কয়েকটি দুরন্ত সিধান্ত (মাস্টার-স্ট্রোক) , দঃ আফ্রিকাকে 243 রানে হারিয়ে দিল, যদিও বিরাট -জাদেজাদের অবিশ্বাস্য পারফরম্যান্স, ছিল মাস্টার-স্ট্রোক ছিল দুরন্ত –

Rate this post

বিশ্বকাপের 37 তম ম্যাচটিতে ভারত এবং দক্ষিণ আফ্রিকা এর মধ্যে খেলা হয়েছিল। টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় ভারত। প্রথমে ব্যাট করে ভারত 50 ওভারে 5 উইকেট হারিয়ে 326 রান করে।

এই লক্ষ্য তাড়া করতে গিয়ে খুব খারপ ভাবে হেরে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা। ৪০ রানে প্যাভিলিয়নে ফিরে যায় অর্ধেক দল। এই কারণেই আফ্রিকা 83 রানে সবাই আউট হয়ে যায়। ভারত 243 রানে ম্যাচ জিতেছিল।

ভারত দক্ষিণ আফ্রিকা কে শোচনীয় ভাবে হারিয়ে দিয়েছে

ভারত (IND বনাম SA), দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে প্রথমে ব্যাট করে, জয়ের জন্য 326 রানের টার্গেট দেয়। এই লক্ষ্য তাড়া করতে গিয়ে ভারতীয় বোলিং লাইনআপের সামনে মুখ থুবড়ে পড়ে দক্ষিণ আফ্রিকান দল। দ্বিতীয় ওভারে ইন-ফর্ম কুইন্টন ডি কককে ৫ রানে আউট করে আফ্রিকার পিঠ ভেঙে দেন ফাস্ট বোলার মোহাম্মদ সিরাজ।

নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটসম্যানরা। কোনো ব্যাটসম্যানের মধ্যে বড় কোনো জুটি গড়ে উঠতে পারেনি। অধিনায়ক টেম্বা বাভুমা 11 রান, রাসি ভ্যান ডের ডুসেন 13, এইডেন মার্করাম 9, হেনরিক ক্লাসেন 1 রান করে আউট হন।

বিরাট কোহলি দুরন্ত সেঞ্চুরির ইনিংস খেলেন

বিরাট কোহলি তার 35 তম জন্মদিনে এই অর্জন করেছেন। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ওডিআই ক্রিকেটে তিনি তার ৪৯তম সেঞ্চুরি করেন। তিনি 121 বলে 101* রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেন।

কারণ এই টার্নিং পিচে রান করা মোটেও সহজ ছিল না। কিন্তু বিরাট তার উইকেট না ছুড়ে দিয়ে শেষ পর্যন্ত থেকেছেন, তিনি জানতেন যে তিনি পুরো 50 ওভার খেললে, 300 পেরিয়ে যেতে পারে এবং এটিই দেখা গেছে।

ভারতীয় বোলাররা তাদের জাদু দেখিয়েছে

২০২৩ সালের বিশ্বকাপে ভারতীয় দলের বোলাররা উচ্চ মানের বোলিং করেছে। যে কোনো দলের বিপক্ষে ম্যাচে অন্য কোনো দলকে হারিয়ে ভারত জিতেছে। এর পেছনে রয়েছে দুর্দান্ত বোলিং। কারণ এটা বিশ্বাস করা হয়েছিল যে আফ্রিকার বিরুদ্ধে ভারতীয় বোলারদের জন্য কঠিন পরীক্ষা হবে (IND vs SA)।

কারণ এই দলটি অনেক বড় স্কোর করেছে। তবে বুমরাহ, সিরাজ, শামি ও জাদেজার সামনে আফ্রিকান ব্যাটসম্যানদের ভয় দেখাচ্ছিল। এ কারণে বড় ইনিংস খেলতে পারেননি কোনো ব্যাটসম্যান। আমরা আপনাকে বলি যে সিরাজ দুর্দান্ত বোলিং করে 1 উইকেট নেন, শামি এবং কুলদীপ ২টি করে উইকেট নেন। যেখানে রবীন্দ্র জাদেজা তার স্পিনের জাদু দেখিয়ে ৫ উইকেট নেন।

বিরাট ও আইয়ারের রেকর্ড করেছেন

ভারত এবং দক্ষিণ আফ্রিকার (IND বনাম SA) মধ্যে খেলা ম্যাচে অনেক বড় রেকর্ডও তৈরি হয়েছিল। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে বিরাট কোহলি তার ৫ম সেঞ্চুরি করেন। এ ক্ষেত্রে তিনি শচীন টেন্ডুলকার ও ডেভিড ওয়ার্নারের সমান। ভারতে ওয়ানডে ক্রিকেটে ৬ হাজার রান পূর্ণ করলেন কোহলি। এর মাধ্যমে তিনি ভারতের মাটিতে তার 37তম সেঞ্চুরি করেন।

কোহলি দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে 3000 আন্তর্জাতিক রান পূর্ণ করার খেলোয়াড়ও হয়েছেন।শ্রেয়াস আইয়ারের কথা বলতে গেলে, তিনি 16 তমবারের মতো ওডিআই ক্রিকেটে 50 টিরও বেশি রান করেছেন। আইয়ারও 4 নম্বর ব্যাটসম্যান হয়েছিলেন যিনি বিশ্বকাপের ইতিহাসে ভারতের হয়ে সর্বাধিক সংখ্যক অর্ধশতক করেছিলেন।

তবে বিশেষজ্ঞদের মতে রহিতের বেশ কিছু মাস্টার স্ট্রোক ভীষণ ভাবে এই জয়ের জন্য দায়ী –

১। টসে জিতে ব্যাটিং করা, কারন এই ম্যাচে টসে জিতে পরে ব্যাট করতে চাইলে ভারত চাপে পড়ে যেতে পারত।

২। নিজে সামনে থেকে নেতৃত্ব দেওয়া, পিচ ভীষণ খারাপ বুঝেও তিনি নিজের খেলা প্রথম থেকেই খেলে গেছেন এবং প্রথম ৪ ওভারে ম্যাচ অনেকটা বার করে দিয়েছেন। পরের ব্যাটাররা দারুন ভাবে উপকৃত হয়েছে।

৩। আজ রোহিত প্রতিটি বোলার কে সঠিক ভাবে প্রয়োগ করেছেন। এবং খেলা দেখে আপনি বুঝতে পেরছেন যে প্রতিটি ব্যাটার এর জন্য আলাদা আলাদা প্ল্যানিং করে বোলিং ও ফিল্ডিং সাজাচ্ছিলনে। যদিও তাঁর বোলাররা তাঁর সাথ দিয়েছে।

৪। DRS নিয়ে তিনি বারাবর সঠিক সিধান্ত নেন। এতে ভারতের DRS মাস্টার কে এল রাহুল তাকে বরাবর সাহায্য করেন। আজকেও তাঁর প্রতিফলন দেখা গেছে।

রোহিতের এত গুলি ভাল সিদ্ধান্ত ভারত কে জেতাতে সাহায্য করেছে।

Whatsapp Group Join
Telegram channel Join

Leave a Reply