You are currently viewing বিধ্বংসী ওয়ার্নার ও মার্সের জোড়া ফলার প্রবল তাণ্ডবে ধূলিসাৎ হল পাকিস্থানের বাবর আজম বাহিনী, ওয়ার্নার – ১৬৩, মার্স – ১২১, অস্ট্রেলিয়া – ৩৬৭

বিধ্বংসী ওয়ার্নার ও মার্সের জোড়া ফলার প্রবল তাণ্ডবে ধূলিসাৎ হল পাকিস্থানের বাবর আজম বাহিনী, ওয়ার্নার – ১৬৩, মার্স – ১২১, অস্ট্রেলিয়া – ৩৬৭

Rate this post

বিশ্বকাপের আজকের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ডেভিড ওয়ার্নার -এর বিধ্বংসী ব্যাটিং দেখল সারা বিশ্ব, এবং সেই ব্যাটিং এ ঝলসে গেল পাকিস্থান।

বিশ্বকাপ ২০২৩ শুরু হয়েছে ৫ অক্টোবর থেকে, এবং তার পর থেকে বিশ্বকাপ ২০২৩ দুরন্ত গতিতে এগোচ্ছে, প্রতিদিন নতুন নতুন কিছু রেকর্ড তৈরি হচ্ছে। সাড়া বিশ্বের ক্রিকেট প্রেমীরা ক্রিকেট কে সুন্দর ভাবে উপভোগ করেছনে। ক্রিকেট জ্বরে সাড়া বিশ্ব এখন সত্যিই কাবু হয়ে পড়েছে।

আজকের বিশ্বকাপ ২০২৩ এর এক গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে পাকিস্থান ও অস্ট্রেলিয়ার পরস্পরের মুখোমুখি হয়েছিল । এই ম্যাচ পাকিস্থান ও অস্ট্রেলিয়ার দু জনের জন্য ছিল ভীষণ এক গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ। কারণ পরের পর্যায়ে যেতে হলে এই ম্যাচ দুই জন কে জিততে হতো।

পাকিস্থান প্রথম দুটি ম্যাচ জিতলে ও শেষ ম্যাচ ভারতের কাছে হেরে গেছে। অস্ট্রেলিয়ার তিন ম্যাচের ভেতর ১ টি ম্যাচ জিতেছে। কোন দলই এই বিশ্বকাপ ২০২৩ দুরন্ত ফর্মে নেই। তাই তারা ও এই ম্যাচে জিতে সেমিফাইনাল কে পাকা করতে এই ম্যাচ জিততে হতো।

আজকের ম্যাচে পাকিস্থান টসে জিতে বল করার সিধান্ত নেয়।

অস্ট্রেলিয়ার দলের শুরু থেকে দুরন্ত খেলা শুরু করে । দুই ওপেনার ব্যাটার দুরন্ত শুরু করেন। পাকিস্থান এর সব বোলার কে এই দুই ব্যাটার কচুকাটা করতে থাকেন। ওয়ার্নার ছিলেন দুরন্ত তিনি একাই ১২৪ বলে ১৬৩ রান করেন। তাকে যোগ্য সঙ্গত দেন মিচিল মার্স তিনি করেন ১২১।

ওয়ার্নার তার ১৬৩ রান করতে ১৪ টি চার এবং ৯ টি ছয় মারেন।

মার্স ১২১ রান করতে ১০ টি চার এবং ৯ টি ছয় মারেন।

শেষের দিকে অবশ্য পাকিস্তানের হরিষ রাউফ কিছুটা ভাল বল করে বেশ কিছু উইকেট নিয়ে রানের গতিকে কিছুটা শ্লথ করেন। আফ্রিদি ও খুব ভাল বল করেন।

হরিষ রাউফ নেনে ৩ টি উইকেট এবং আফ্রিদি নেন ৫ টি উইকেট।

অস্ট্রেলিয়া ৯ উইকেটে ৩৬৭ রান করে ইনিংস শেষ করে।

বন্ধুরা পোস্টটিকে অবশ্যই কিন্তু একটা লাইক দেবেন, কোন মন্তব্য থাকলে অবশ্যই কমেন্ট করবেন।

Whatsapp Group Join
Telegram channel Join

Leave a Reply